জুভেন্টাসের নাটকীয় জয়, অভিষেকে গোলহীন রোনালদো

কয়েকটি শট বক্সের কোনা ঘেঁষে চলে গেল, কয়েকটি দুর্দান্ত দক্ষতায় ফিরিয়ে দিলেন শিয়েভো গোলরক্ষক। সিরি-আ অভিষেকে মাঠ গরম রাখলেও গোলের দেখা পেলেন না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তবে পর্তুগিজ যুবরাজ জালমুখ খুলতে না পারলেও চরম উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচটিতে ৩-২ গোলের নাটকীয় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে জুভেন্টাস। 

নির্ধারিত সময়ে ম্যাচটি ২-২ সমতায় ছিল। ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে এসে দলকে আনন্দের উপলক্ষ্য এনে দেন ৫৬ মিনিটে হুয়ান কুয়াদরাদোর বদলি হিসেবে খেলতে নামসা ফেদেরিকো বার্নারডেসচি।

উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই সামি খেদিরার গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। ৩৮ মিনিটে দারুণ এক হেডে শিয়েভোকে সমতায় ফেরান মারিউস স্টেফিনস্কি।

দ্বিতীয়ার্ধে এসে ম্যাচটি আরও রং ছড়িয়েছে। ৫৬ মিনিটে এসে এমানুয়েল জিয়াচেরিনির পেনাল্টিতে ২-১ গোলে এগিয়ে যায় শিয়েভো। খেলার মিনিট পনের বাকি থাকতে মাত্তিয়া বানির আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফিরে জুভেন্টাস। ৮৬তম মিনিটে এসে আরও একটি গোলের দেখা পেয়ে গিয়েছিল ইতালির জায়ান্টরা।

মারিও মানজুকিচের হেড শিয়েভো ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করলেও সেটা গোললাইন অতিক্রম করে যায়। তবে ভিএআরের মাধ্যমে সে গোলটি বাতিল করে দেন রেফারি। কারণ ক্রোয়েট তারকা যখন হেডটি নিচ্ছিলেন, তখন রোনালদোর সঙ্গে ধাক্কা লেগে মাটিতে পড়ে যান শিয়েভো গোলরক্ষক সরেন্তিনো।

আঘাত বেশি পাওয়ায় সরেন্তিনোর বদলি হয়ে গোলপোস্টের নিচে দাঁড়ান আন্দ্রে স্কুলিন। ইনজুরি সময়ে এসে সেই স্কুলিনকেই বোকা বানান বার্নারডেসচি। অ্যালেক্স সান্দ্রোর নিচু ক্রস থেকে বল পেয়ে চোখের পলকে সেটা জালে জড়িয়ে দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *